Raushan Garden | Nawabganj Printing View
Untitled Document
অবসর সময়ে ভ্রমণ করুন ও দেশ সম্পর্কে জানুন - পর্যটনবিডি.কম
Picnic Spot and Resort of Bangladesh  
  Web Guideline

.

Raushan Garden
.

কর্মমুখর নাগরিক জীবনে যারা দুদন্ড শান্তি খুঁজছেন তাদেরকেই হাতছানি দিয়ে ডাকছে ছায়া শোভিত অনিন্দ্য রওশন গার্ডেন । অবস্থান ঢাকার নবাবগঞ্জের কৈলাইল ইউনিয়নের ছায়া সুনিবিড় কৈলাইল গ্রামে। খুব বেশিদিন হয়নি রওশন গার্ডেনের যাত্রা শুরু হয়েছে। ২০১৩ সালে ব্যতিক্রমী এ পার্কের যাত্রা । প্রতিষ্ঠাতা এবং স্বপ্নদ্রষ্টা স্বনাম  ধন্য রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব সৈয়দ আহমেদ খান। আদতে একজন সৃষ্টিশীল মানুষ । পার্কের পরতে পরতে তাই রয়েছে সৃষ্টিশীলতার ছোঁয়া।

খোলামেলা ,সাজানো  গোছানো , ছিমছাম। সর্বোপরি র্নিমল নির্জনতার এক অন্যভুবন। মুহুর্তে পর্যটককে নিয়ে যাবে কোলাহল মুখর জীবন , পারিপার্শ্বকতা থেকে এক অন্য জগতে। যে জগতে নির্জনতার সঙ্গে ঘটে র্নিমল আত্নার অপূর্ব মেলবন্ধন। ২৬ বিঘা জমির উপর প্রতিষ্ঠিত রওশন গার্ডেনের প্রধান আর্কষণ দেশি-বিদেশি নানান প্রজাতির বৃক্ষ ।

যেদিকে তাকাবেন দুচোখে বোনে দেবে সবুজের আল্পনা। প্রকৃতির সাথে রয়েছে শৈল্পিকতার মিশেল। যা প্রকৃতিকে দিয়েছে বাড়তি নান্দনিকতা। সবমিলিয়ে সবুজ সুন্দর। বিকালে কিংবা সন্ধ্যায় তরল অন্ধকারে পাখ পাখালির কিচিরমিচির শহুরে নাগরিকের জন্য হবে অন্যরকম অভিঞ্জতা। আর আছে বর্ণিল ফুলের সমারোহ । ফুলে ফুলে রঙধনু প্রজাপতির  ওড়াওড়ি। মন মুগদ্ধকর এক পরিবেশ।

বিশাল আকারের চারটি জল টলমলে পুকুর রওশন গার্ডেনকে করেছে দারুণ শোভিত। পুকুরের শান বাধানো ঘাট , ঘাটে বসে কাটিয়ে দিতে পারেন একটি নির্মল বিকাল কিংবা মোহময় সন্ধ্যা। ইচ্ছা করলে প্যাডেল বোটে চড়ে ভেসে যেতে পারেন জলের রাজ্যে। কিংবা বড়শিতে মাছ ধরে কাটিয়ে দিতে পারেন রোমাঞ্চকর সময়। রওশন গার্ডেনের ভাষ্কর্যগুলো পার্কের অন্যরকম এক আকর্ষণ । পুরো রিসোর্ট  জুড়েই রয়েছে  নানান প্রাণীর ভাষ্কর্য। বাঘ , হাতি ,বানর ,জিরাফ ,জলপরী , মৎসকন্যা ,কচ্ছপ ,ব্যাঙ আরও কত কি? বাঘ মামার বিশাল হা দেখে ভয় পাবেন না যেন। চট করে মুখ দিয়ে ঢুকে অন্য পারে চলে যান কিচ্ছু হবে না । রওশন গার্ডেন যেন নানান প্রাণীর  ভাষ্কর্যের এক অপূর্ব ভুবন। যা শিশু থেকে বয়স্ক সবাইকে মুগদ্ধ করবে সমান ভাবে।

রওশন গার্ডেনে পিকনিক পার্টির বিশ্রামের জন্য রয়েছে রুচিশীল আসবাবপত্রে  সুসজ্জিত কয়েকটি কক্ষ। রয়েছে অনেক উচুতে তৈরি ছাউনি ঘেরা আড্ডা খানা । ছিমছাম রেস্টুরেন্ট সুবিধামতো আছে। অর্ডার দিলে পার্ক কর্তৃপক্ষ খাবারের আয়োজন করে অথবা নিজেরাও রান্নাবান্নার আয়োজন করা যায়। আছে যাবতীয় সুব্যবস্থা। তাছাড়া ক্যন্টিন সুবিধাতো আছেই। রওশন গার্ডেনে রয়েছে বেশ কিছু মজাদার রাইড-দোলনা , স্লিপার ছাড়াও শীঘ্রই যোগ হচ্ছে টয় ট্রেন , সুইং চেয়ারসহ আরও কিছু অত্যাধুনিক রাইড।  কর্তৃপক্ষের ওয়াটার ওয়ার্ল্ড  সুইমিংপুল নির্মানের  পরিকল্পনাও রয়েছে।

রওশন গার্ডেনের  অন্যতম আর্কষণ বাউল মঞ্চ । বাউল মঞ্চে লোকজ  সাংস্কৃতিক  অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় বিশেষ দিনগুলোতে  -যা পর্যটকদের দেয় বাড়তি বিনোদন। পার্কে প্রবেশ ফি মাত্র ২০ টাকা। তো আর দেরি কেন? নাগরিক কোলাহল থেকে দূরে গিয়ে কাটিয়ে আসুন নির্মল কিছু সময় , স্বপ্নীল একটি দিন। ঢাকার বাবুবাজার থেকে ২৪ কিলোমিটার পশ্চিমে ,নবাবগঞ্জ থেকে ১৫ কিলোমিটার দক্ষিণ পশ্চিমে কৈলাইল গ্রামে এর অবস্থান ।

 

 

 

 

 

 

 

Anindya Raushan Garden, which is adorned with shadows, is calling out to those who are looking for peace in the life of a busy citizen. Location Sunibir Kailail village in the shadow of Kailail Union in Nawabganj, Dhaka. Not long ago, the journey of Raushan Garden has started. The journey to this exceptional park in 2013. Blessed political personality Syed Ahmed Khan, the founder and dreamer. Basically a creative man. There is a touch of creativity in the park.

Open, neat, tidy. Above all, Rnimal is a different world of solitude. The moment will take the tourist to a noisy life, from the surroundings to another world. In that world, there is a wonderful union of the soul with the solitude. Established on 26 bighas of land, the main attraction of Raushan Garden is the variety of native and foreign species of trees.

Wherever you look, you will see a green alpana with two eyes. There is a mix of art with nature. Which has given extra aesthetics to nature. Overall green - beautiful. In the afternoon or evening in the liquid darkness, the chirping of the wings will be a different experience for the urban citizens. And there are colorful flower ceremonies. A swarm of rainbow butterflies swarming. An enchanting environment.

The four huge water swaying ponds have made the Raushan Garden very beautiful. You can spend a clear afternoon or an enchanting evening sitting on the ghat, which is paved with sand. If you wish, you can take a paddle boat and float in the water. Or you can spend an exciting time fishing with a fishing rod. The sculptures in Raushan Garden are another attraction of the park. There are sculptures of various animals throughout the resort. Tigers, elephants, monkeys, giraffes, mermaids, mermaids, turtles, frogs and many more? Dont be afraid to see the huge ha of the tiger uncle. Nothing will happen if you enter with your mouth and go to the other side. Raushan Garden is a wonderful world of sculptures of various animals. Which will fascinate everyone from children to adults in an equal way.

The picnic party at Raushan Garden is furnished with a few rooms furnished with tasteful furniture. There are many high-rise tents and hangouts. There are neat restaurants conveniently. If ordered, the park authorities can arrange meals or cook for themselves. There are all the facilities. Moreover, there is a canteen facility. Raushan Garden has a number of fun ride-swings, in addition to slippers, soon toy trains, swing chairs and more sophisticated rides. The authority also has plans to build a water world swimming pool.

One of the attractions of Raushan Garden is the Baul Mancha. Folk cultural events are organized on the Baul Mancha on special days - which gives extra entertainment to the tourists. The entrance fee to the park is only 20 rupees. So why are you late? Get away from the hustle and bustle of the citizens and spend some pure time, a dreamy day. It is located at Kailail village, 24 km west of Babubazar in Dhaka and 15 km southwest of Nawabganj.

 

Address :
Dhaka :

 

 

Mobile : 0197776737, 01677711508, 01711111605

Email :

www.

Park :

 

 

Information Provided By :

 

 

Important Tourism Information of Bangladesh

by md. abidur rahman | parjatanbd | A Home of Tourism
 

Welcome